মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৩rd জুলাই ২০১৫

দেশী হাঁসের জেনেটিক বৈচিত্র্য পর্যবেক্ষণ

গৃহপালিত পাখীর মধ্যে হাঁস দেশের সর্বত্রই পাওয়া যায় এবং এটি গ্রামের মহিলাদের প্রধান সম্পদের মধ্যে একটি। গৃহপালিত হাঁসের কিছু বৈশিষ্ট্য যেমন, লালন পালনে অল্প পুঁজি, অল্প যায়গা, সাধারণ মানের খাবার, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, প্রতিকুল পরিবেশে বেচে থাকার ক্ষমতা ইত্যাদির কারণে দেশের সবত্রই হাঁস পালন করা হয়। হাঁসের খামার গ্রামীণ মহিলাদের আর্থিকভাবে সাবলম্ভী করে যা তার পারিবারিক ও সামাজিক জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া, হাঁসের ডিম ও মাংস আমাদের প্রানিজ আমিষের ঘাটতি পূরণে সহায়তা করে। হাঁসের উৎপাদনশীলতা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা, ইত্যাদি বৈশিষ্ট্য  প্রাণি ওঅঞ্চলভেদে ভিন্নতর হয়। দেশি হাঁসের উৎপাদন ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার ভিন্নতা পর্যবেক্ষণের জন্যই এই প্রকল্পটি হাতে নেওয়া হয়েছে। এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা গেলে জাতীয় ও আঞ্চলিকভাবে হাঁস প্রজননের একটি দিকনির্দেশনা পাওয়া যাবে যা জাতীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখবে।

 

চলমান কার্যক্রম

 

  1. ঢাকা, নাটোর, কুড়িগ্রাম, কিশোরগঞ্জ এবং নঁওগা থেকে দেশী হাঁসের ২১৬ টি রক্ত নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে;
  2.  ২১৬টি নমুনা হতে ডিএনএ পৃথক করা হয়েছে।
  3.  সাতটি মাইক্রোস্যাটেলাইট প্রাইমার ব্যবহার করে ঢাকা, নাটোর ও কুড়িগ্রাম হতে সংগ্রহকৃত ১৪৫ টি নমুনার পিসিআর সম্পন্ন করা হয়েছে;
  4. বাকি নমুনা সমূহের পিসিআর এর কাজ চলমান রয়েছে;
  5. অন্যান্য নির্ধারিত অঞ্চল হতে রক্ত নমুনা সংগ্রহের কাজ চলমান রয়েছে।

 

 


Share with :